ভারত ইন্ডিয়া হিন্দুস্তান কেন

Dec 30, 2020 | বাংলাদেশ

ভারত ভারতবর্ষ ইন্ডিয়া হিন্দুস্তান কেন এক দেশের এত নাম

ভারত ভারতবর্ষ ইন্ডিয়া হিন্দুস্তান কেন এক দেশের এত নাম? ভারত এর নাম ইন্ডিয়া হিন্দুস্থান ভারতবর্ষ কেন? ‘INDIA’ শব্দের পুরো নাম কী? India-কে বাংলায় ভারত বলা হয় কেন? ভারতের নাম কিভাবে ‘ভারত’ হলো? ভারতকে ইন্ডিয়া কেন বলা হয়? ইন্ডিয়াকে (India) বাংলায় ভারত বলা হয় কেন? India – Hindustan – Bharath, Why many kinds of name in India. Fallow Indian History www.kaziitzone.com . প্রায় সমস্ত ঐতিহাসিক, সর্বজন পরিচিত দেশের ই একাধিক নাম থাকে। এতিহাসিক ভাবে গুরুত্বপুর্ন দেশ গুলো সারা পৃথিবীতে সুপরিচিত হওয়ার দৌলতে বিভিন্ন বিদেশীয় জাতি দ্বারা প্রদত্ত নাম এর কারনে একটি দেশ একাধিক নামে পরিচিতি পায়। বর্তমান ভারতের সরকারি নথিতে যে নাম লেখা থাকে তা হল “ ভারতীয় সাধারনতন্ত্র” ও “রিপাবলিক ওফ ইন্ডিয়া”। যদিও এটা আসলে “ভারতীয় গনতান্ত্রীক সাধারনতন্ত্র” ও “ডেমোক্র্যাটিক রিপাবলিক অফ ইন্ডিয়া”।ভারতবর্ষ থেকে ভারত কিভাবে হলো? -ভারতের দেশীয় এবং আসল নাম ছিল “ভারতবর্ষ”। কিন্তু দেশভাগের ফলে “ভারতবর্ষ” থেকে কিছু এলাকা বাদ পড়ে তাই “ভারতবর্ষ” থেকে “বর্ষ” বাদ দিয়ে নতুন নাম দেওয়া হয় “ভারত”।

ভারত ইন্ডিয়া হিন্দুস্তান কেন?

সরকারি ভাবে ভারতের দুটো নাম “ভারত” এবং “ইন্ডিয়া”। দেশীয় নাম “ভারত” আর বিদেশী নাম “ইন্ডিয়া”। অন্যান্য আরো অনেক দেশের ই দুটো করে সরকারি নাম আছে, একটা দেশীয়, আরেকটা বিদেশী। এখন ভারতের আরো একটি সুপরিচিত নাম হল “হিন্দুস্তান”। “ইন্ডিয়া” আর “হিন্দুস্তান” এর অর্থ একি। দুটোই বিদেশীদের দেওয়া। “ইন্ডিয়া” নামটি গ্রীকদের (ইউরোপ) দেওয়া, “হিন্দুস্তান” নামটি আরবদের দেওয়া। দুটো নাম ই দেওয়া হয়েছে সিন্ধু নদের নাম অনুসারে। এটা খুব হাস্যকর ব্যাপার হল হিন্দুস্তান নামটা সরকারি ভাবে গ্রহন না করার পিছনে যুক্তি ছিল এতে নাকি মুসলিম রা অসন্তুষ্ট হবে। বাস্তবে হিন্দুস্তান নাম টা আরব এবং ভারতীয় মুসলিম দের মধ্যে খুব জনপ্রিয়। যায়হোক, ভারত নাম টা দেশের ঐতিহাসিক এবং ভৌগলিক সংগা থেকে নিতেই হত। আবার বিদেশী নাম দুটো থেকে একটা কে বেছে নিতে হত। যেহেতু ইংরেজি ভাষার জোর এবং প্রসার বেশী তাই হিন্দুস্তান বাদ দিয়ে ইন্ডিয়া কে গ্রহন তরা হয়েছিল। তবে হিন্দুস্তান নামটাও খুব জনপ্রিয়। আরব দেশ গুলো ভারত কে হিন্দুস্তান, হিন্দিস্তান, হিন্দিয়া ইত্যাদি নামে ডাকে,ইউরোপিয় দেশগুলি ইন্ডিয়া বা ইন্ডিয়ার পরিবর্তিত রূপ ব্যাবহার করে। ইজরায়েল ভারত কে “হদু” বলে। রাশিয়া বলে “ইঞ্জিঅ্য”। চীন বলে “ইন্দু”। জাপন ও সম্ভবত তাই বলে। কাজেই ভারতের যে তিনটি জনপ্রিয় নাম আছে তার পিছনে কারন বিভিন্ন দেশের সঙ্গে ঐতিহাসিক সম্পর্ক। প্রাচীন দেশ গুলোর একাধিক নাম থাকা খুবি স্বাভাবিক ব্যাপার।

 

ভারত ভারতবর্ষ ইন্ডিয়া হিন্দুস্তান কেন এক দেশের এত নাম? ভারত এর নাম ইন্ডিয়া হিন্দুস্থান ভারতবর্ষ কেন? ‘INDIA’ শব্দের পুরো নাম কী? India-কে বাংলায় ভারত বলা হয় কেন? ভারতের নাম কিভাবে ‘ভারত’ হলো? ভারতকে ইন্ডিয়া কেন বলা হয়? ইন্ডিয়াকে (India) বাংলায় ভারত বলা হয় কেন?

 

অন্যান দেশের একাধিক নামের মধ্যে আমি যে কটা জানি সেগুলো হলো –

মিশর ইজিপ্ট
আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র-  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ইরান-পারস্য- পার্সিয়া
জাপান- নিপ্পন
যুক্তরাজ্য-ব্রিটেন- ইংল্যান্ড-বিলেত
বার্মা- মিয়ানমার
শ্রীলংকা-সিংহল- সেইলন
নেদারল্যান্ড- হল্যান্ড
চীন- ঝঙ্গুয় – সেনঝঞ- পিপলস রিপাবলিক অফ চাইনা।
তাইওয়ান –  রিপাবলিক ওফ চাইনা

 

কোন দেশের  একাধিক নাম – তার নাম হিন্দুস্থান

ভারতবর্ষ ভাগ হয়েছিলো ধর্ম ভিত্তিক পাকিস্তান ও হিন্দুস্তান। হিন্দুস্তানকে ভারত বা ইন্ডিয়া বলে কেন? আসলে হিন্দু নামটা হিন্দুদের দেওয়া নয়!

ইন্ডিয়াকে নিয়ে কিছু যুক্তিযুক্ত আলোচনাঃ

ডিম আগে না মুরগি এটা যেমন জানা যায়নি, তেমনি ভারতের নাম থেকে ভরত নাম এসেছে নাকি ভরত নামের পৌরাণিক চরিত্র থেকে ভারতের নামকরণ সেটা নিয়ে নির্দিষ্ট প্রমাণ মেলেনি। তবে প্রাচীনকালে লেখা বেদ, উপনিষদ, পুরাণ, রামায়ন আর মহাভারত থেকে যে জায়গাগুলোর কথা জানা যায়, সেগুলোতে মোটামুটি অধুনা ইরান থেকে উত্তরে হিমালয় তথা তিব্বত আর দক্ষিণে শ্রীলঙ্কা আর মালদিভ (মালদ্বীপ) হয়ে পূর্বে মায়ানমার (ব্রহ্মদেশ) হয়ে সুদূর ইন্দোনেশিয়া পর্যন্ত বিভিন্ন জায়গার উল্লেখ পাওয়া যায়। ঠিক যেমন ইব্রাহিম সংক্রান্ত তিন ধর্মের জগত মধ্য-প্রাচ্যে সীমিত, তেমনি এইসব ধর্মগ্রন্থে এই পুরো এলাকাকে ভারত হিসেবে দেখানো হয়েছে। তাই আপনি কোথাও হামিং পাখি বা পেঙ্গুইন অথবা প্লাটিপাসের উল্লেখ পাবেন না। যাইহোক, সিন্ধু নদীকে পার্সিরা হিন্দুশ আর গ্রীকরা ইন্দাস বলতো। মুসলিম রাজত্বের সময় সনাতন ধর্মাবলম্বী লোকেদের হিন্দু বলা হত আর হিন্দুরাও নিজেদের হিন্দু বলতে লাগল! পরে এই শব্দে ব্রিটিশরা আদমসুমারির উদ্দেশ্যে শিলমোহর দেয়।

ভারত ইন্ডিয়া হিন্দুস্তান কেন

                                           ভারত ইন্ডিয়া হিন্দুস্তান কেন


এভাবেই সনাতনীরা হয়ে গেলেন হিন্দু আর ভারতকে একই যুক্তিতে সিন্ধুস্থান ডাকার বদলে তা হয়ে গেল হিন্দুদের জায়গা (স্থান/স্তান) মানে হিন্দুস্তান। তারপর গঙ্গা দিয়ে অনেক জল আর ময়লা বয়ে গেছে। বর্তমানে বেশিরভাগ হিন্দুই জানে না সনাতন ধর্ম কোন গ্রহের জিনিস। অর্থাৎ “হিন্দু” বলতে বেশিরভাগ অসনাতনী আর সনাতনীরা “হিন্দু দেব দেবী মানেন” এমন লোকেদের বোঝেন যদিও এ ব্যাপারে আমার মত তারেখ ফতেহর মতো: অর্থাৎ পাকিস্তানি থেকে ভারতীয়, বাংলাদেশী থেকে নেপাল আমরা সবাই হিন্দু; তবে ভৌগলিক দিক থেকে, ধর্মের দিকে থেকে নয়। কিন্তু উপমহাদেশে অশিক্ষিতের সংখ্যা খুব বেশি কিনা! পাছে “হিন্দুস্তান” বললে নিজের মহিমা ক্ষুন্ন হয় সেই ভয়ে নেহেরু এই নামের বিরোধী ছিলেন। তবে যেহেতু বেশিরভাগ মানুষ ভারতে আজও হিন্দু ধর্মের, তাই স্বাভাবিকভাবেই একে অনেকে হিন্দুস্তান বলেন। আর যদি ভারত আর ইন্ডিয়া- দুই ভাষায় দুটো নামের কথা বলেন তাহলে বলব অন্য দেশেরও এইরকম আছে, যেমন জার্মানি বা পর্তুগালের ক্ষেত্রে।

 

সূত্রঃ Wikipedia, Social Media, Quora, ইত্যাদি হতে সংগ্রহীত। পাঠকদের উদ্দেশ্যে কিছু কথাঃ কেন? ইন্ডিয়ার নাম ভারত, হিন্দুস্থান, কখন এবং কোন সময় ভারতবর্ষ থেকে বর্ষ নামটি মুছে গিয়ে ”ভারত” হলো? আমাদের ওয়েবসাইট  “কাজী আইটি জোন” লেখাটি প্রকাশ করেছে কাজী কোন ভূল হলে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন আর হ্যাঁ  ভারত  সম্পর্কে কোন ইতিহাস বা তথ্য জানা থাকলে এই পোস্টের নিচে কমেন্ট বক্সে আপনার কথাগুলো লিখুন। কাজী আইটি মূলত একটি ওয়েব ডিজাইন এবং ওয়েব ডিভেলপমেন্ট কোম্পানি, পাশা পাশি চাকরির খবর, এবং সমাজের মানুষের জ্ঞান অর্জন মূলক কথা প্রকাশ করে থাকি। আপডেট যে কোন তথ্য পেতে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। ধন্যবাদ।।

0 Comments

Submit a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Adsense

Categories

জনপ্রিয় পোস্ট সমূহ

Pin It on Pinterest

Share This